আজ ২২শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৬ই জুলাই, ২০২০ ইং

সাতক্ষীরায় এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার।

নিউজ ডেস্ক:সাতক্ষীরা সদর উপজেলায় রাবেয়া খাতুন (১৯) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিউজ ডেস্ক:সাতক্ষীরা সদর উপজেলায় রাবেয়া খাতুন (১৯) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
শুক্রবার রাতে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার আগরদাঁড়ি গ্রামে স্বামীর বাড়ির শয়নকক্ষের আড়ায় ওড়না পেঁচানো রাবেয়ার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয় তবে রাবেয়াকে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করেছে বলে রাবেয়ার পরিবারের অভিযোগ।

এদিকে রাবেয়া আত্মহত্যা করেছে বলে দাবি তার শ্বশুরের। এ ঘটনায় পুলিশ রাবেয়ার স্বামী রনি মোল্লাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে।
নিহত রাবেয়া খাতুন সদর উপজেলার তলুইগাছা গ্রামের আবদুর রাজ্জাকের মেয়ে। এক বছর আগে তার বিয়ে হয় একই উপজেলার আগরদাঁড়ি গ্রামের রনি মোল্লার সঙ্গে।
রাবেয়ার বাবার দাবি, বিয়ের পর থেকে রাবেয়ার ওপর যৌতুকের কারণে নির্যাতন চালানো হতো। শুক্রবার রাতে ঝগড়ার একপর্যায়ে রনি মোল্লা তাকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করে। পরে তার লাশ ঘরের আড়ায় ঝুলিয়ে রেখে প্রচার করা হয় রাবেয়া আত্মহত্যা করেছে।
সদর থানার এসআই কবির হোসেন জানান, রাবেয়ার দেহে কোনো নির্যাতনের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য স্বামী রনিকে আটক করা হয়েছে। রাবেয়ার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ জাতীয় আরও খবর

juboraj.com